হেমন্ত বেলায় – কামরান চৌধুরী

কামরান চৌধুরী
রূপের যাদুতে বেঁধেছো প্রকৃতি বদলে জীবন রস
সবুজে-হলুদে মায়া মমতায় হেমন্তে মন যে বশ।
ধানের ডগায় শিশির কণায় মুক্তা ঝলমল করে
কার্তিক অঘ্রাণে পরিপক্ক ধানে কৃষকের গোলা ভরে।
সোনালি ধানের উৎসব মাঠে কৃষকের খুশি মন
পিঠা মিঠা রসে নবান্ন জোয়ারে হৃদয় যে চনমন।
সবজি ফসলে মাঠ আর মাঠ ভরে চলে আদিগন্ত
মুঠি মুঠি তুলে আনন্দ উল্লাসে করছি ভাগ অনন্ত।
খেজুরের রসে শিহরিত দেহ অভূত আনন্দ খেলা
মাঠে গৃহে কাজে ব্যস্ততার মাঝে কেটে যায় সারাবেলা।
গাছে গাছে ফুল শিউলি কামিনি অশোক ছাতিম শোভা
ভোরের শিশির সাঁঝের কুয়াশা আহা! সে কি! মনোলোভা।
বৃক্ষ পাতা বেয়ে টিনের চালেতে শিশির ঝরার শব্দ
জ্যোসনা আলোয় আকাশের বুকে শূন্যতার মায়া স্তব্ধ।
আগত শীতের আগমনী গান এই হেমন্ত ঋতুতে
আত্মীয় স্বজন প্রতিবেশি নিয়ে আনন্দ এক বিন্দুতে।
নির্বাক নিশ্চুপ একাগ্র ভাবনা নিস্তরঙ্গ ছবি আঁকে
নশ্বর জীবন অনশ্বর খোঁজে, কার ডাক মন বাঁকে।
এই আগমন এইতো বিদায় বুঝতে না পারে কেহ
হেমন্ত জীবন বুঝতে বুঝতে সমাহিত হয় দেহ।